বেস্টফ্রেন্ডের ছোট বোন by সামির আহমেদ রোহান পর্বঃ ০৪

বেস্টফ্রেন্ডের ছোট বোন

পর্বঃ ০৪

লেখকঃ  সামির আহমেদ রোহান

 

 

খুশিঃ আমি আজ খাওয়াবো না

 

আমিঃ আচ্ছা আয় আমি খাওয়াবো

 

সাঈদঃ সত্যি 😳😳

 

আমিঃ হুম সত্যি চল

 

সাঈদঃ মামা সত্যি করে বল কয় টাকা চুরি করছিস,,,। আমাকে ৪০% দিতে হবে না হলে আন্টিকে বলে দিব

 

আমিঃ সা ,,,,।  গালি দিলাম না,,,। আমাকে দেখে কি চোর মনে হয় তোর,,,,

 

খুশিঃ আরে বাদ দে তো,,,,,,। আমি তো জানি তুই চোর না,,,,। এখন আয় খুদা লাগছে

 

আমিঃ আচ্ছা আয়

 

তারপর আমরা সবাই রেস্টুরেন্টে যেয়ে বসলাম

 

আমিঃ এ মামা ৪ প্লেট তেহারি দিও তো

 

তানিয়াঃ আপু আমি খাবো না

 

খুশিঃ কেন কি হইছে

 

তানিয়াঃ খুদা নাই

 

খুশিঃ শরির খারাপ লাগতেছে??

 

তানিয়াঃ না এমনি খুদা নাই

 

খুশিঃ আচ্ছা মামা ৩ টা দিও,,,,,।

 

তারপর আমরা খেয়ে রেস্টুরেন্ট থেকে বের হলাম

 

আমিঃ দোস্ত আজ কি ক্লাস করবি নাকি বাসায় চলে যাবি

 

খুশিঃ কেন ক্লাস করবো সামনে পরিক্ষা৷ এখন ক্লাস মিস দেওয়া যাবে না

 

আমিঃ তাহলে ও কোথায় যাবে

 

তারপর খুশি তানিয়াকে কিছু টাকা দিল

 

খুশিঃ তানিয়া তুই যা সামনেই একটা পার্ক আছে ঘুরে আয়,,,,। মার্কেট ও আছে তুই যা আমি কল করলে তারাতারি চলে আসবি

 

তানিয়াঃ আচ্ছা আপু 😊

 

তারপর তানিয়া চলে গেল পার্কে আমি খুশি আর সাঈদ চলে গেলাম ক্লাসে

 

তারপর আমরা ক্লাস শেষ করে কেন্টিনে এসে বসলাম

 

আমিঃ কিরে খুশি তোর বোন কি বাসায় চলে গেছে নাকি

 

খুশিঃ না আমি কল দিতেছি ওয়েট কর

 

আমিঃ আচ্ছা

 

তারপর খুশি ওর বোন মানে তানিয়াকে কল দিয়ে আসতে বললো

 

কিছুক্ষন পর তানিয়া আসলো

 

তারপর আমরা কেন্টিনে খেলাম

তানিয়া নাকি খেয়ে আসছে

 

তারপর সবাই বাড়ি চলে গেলাম

 

আমি বাসায় যেয়ে ভাবতে লাগলাম

 

এই প্রথম কাউকে দেখে এতো ভালো লাগছে

 

তারপর আবার ভাবলাম না তানিয়াকে নিয়ে ভাবা যাবে না খুশি যদি জানে তাহলে খারাপ ভাববে

 

 

আর এই দিকে তানিয়া খুশিকে বলতেছে

 

তানিয়াঃ আপু

 

খুশিঃ কি। কিছু বলবি?

 

তানিয়াঃ হুম একটা কথা বলি,,,,,,?

 

খুশিঃ বল

 

তানিয়াঃ অই যে তোমার ফ্রেন্ড সামির নাম যে

 

খুশিঃ হুম কি হইছে

 

তানিয়াঃ তুমি কই জানি গেছিলা না প্রথমে

 

খুশিঃ হুম তো

 

তানিয়াঃ অই সময় আমি দেখছি সামির ভাইয়া কিভাবে যে তাকিয়ে ছিল আমার দিকে

 

খুশিঃ কিভাবে তাকাইছে 😳(একটু এক্সাইটেড হয়ে)

 

তানিয়া: তোমাকে দেখে তো মনে হয় হচ্ছে তুমি এটাই চাইছো

 

খুশিঃ আরে সত্যি আমি এটা চাইছি

 

তানিয়াঃ ছিঃ আপু তুমি আমার বোন

 

খুশিঃ আরে সামির অনেক ভালো এই পর্যন্ত কোন মেয়ের সাথে এভাবে তাকায় নাই,,,। তাকায় নাই বললে ভুল হবে তাকাইছে কিন্তু কাউকে পছন্দ হয় নাই

 

তানিয়াঃ তো আমি কি করবো আমার দিকে এভাবে তাকাবে কেন,,,,,? তোমার ফ্রেন্ডকে বলে দিবা আর যাতে না তাকায়

 

খুশিঃ তাকাবেই ১০০ বার না ২০০ বার তাকাবে

 

তারপর ২ বোন জগড়া লেগে গেল

 

আর এই দিকে আমি এই গুলা ভাবা বাদ দিয়ে পড়তে বসলাম

 

তারপর রাতে খেয়ে ঘুমিয়ে গেলাম

 

তারপর দিন সকালে খুশি সাঈদকে কলত দিয়ে আমার আগে চলে যেতে কিন্তু বললো না

 

আমাকে সাঈদ কল দিয়ে বললো ওকে নাকি খুশি তারাতারি যেতে বলছে

 

তাই ভয় পেয়ে গেলাম মনে হয় তানিয়া দেখে ফেলছে যে আমি ওর দিকে তাকিয়ে ছিলাম আর এটা মনে হয় খুশিকে বলে দিছে

 

ভাবতে লাগলাম খুশি নাকি আবার আমাদের ফ্রেন্ডশিপ নষ্ট করে দেয়

 

এই ভয় নিয়ে বসে ছিলাম তারপর সাঈদ কলেজ গেল

 

খুশিঃ এই দোস্ত একটা সত্যি কথা বলবি

 

সাঈদঃ কি সত্যি কথা বল

 

খুশিঃ আগে প্রমিজ কর সত্যি টা বলবি

 

সাঈদঃ আচ্ছা

 

খুশিঃ আচ্ছা সামির নাকি কাল প্রথমে তানিয়ার দিকে কিভাবে তাকিয়ে ছিল

 

সাঈদঃ হুম দোস্ত আমি তো পুরো অভাক হয়ে গেছিলাম

 

খুশিঃ কেন,,,,,,?

 

সাঈদঃ আরে তাকাইছে তো ভালো কথা আবার বলতেছিল পরি,বিশ্ব সুন্দরী আরো অনেক কিছু,,,,,

(সালা আবার বানিয়ে বানিয়ে কত কিছু বলতেছে 🤦‍♂️,।তাই আপনাদের বলছি কোন পেট পাতলা বেষ্ট ফ্রেন্ড থাকলে তাকে কোন পার্সনাল কথা বলবেন না তাহলে আমার মতো ফেসে যাবেন)

 

খুশিঃ সত্যি ও এগুলা বলছে,,,,,,??

 

সাঈদঃ আরে আমি কি মিথ্যা বলছি বল দোস্ত,,,,?আমার ও প্রথম বিশ্বাস হয় নাই,,,,?এগুলা বলছে সামির তাও আবার একটা বোরখা পড়া মেয়েকে ভাবা যায়

 

খুশিঃ যা লুইচ্চা খালি বোরখা বোরখা করিস কেন,,,,? লুইচ্চামি সব জায়গায়

 

সাঈদঃ এখন লুচ্চা বলতেছিস

 

খুশিঃ আচ্ছা শোন সামিরের সাথে একটা প্রাংন্ক করবো

 

সাঈদঃ কি প্রাংন্ক

 

খুশিঃ ও আসলে প্রথমে একটু রাগি রাগি ভাব নিয়ে জিজ্ঞেস করবো তাহলে ভয় পাবে আমি ১০০% সিউর

 

সাঈদঃ আমি কিছু করতে পারবো না তুই করিস

 

খুশিঃ আচ্ছা আমি ই করবো তুই খালি চুপ থাকবি

 

সাঈদঃ আচ্ছা

 

তারপর ওরা ২ জন আড্ডা দিতেছিল

 

আর আমি এই দিকে একবার ভাবতেছি কলেজ যাব আবার ভাবতেছি কলেজ যাব না

 

তারপর ভাবলাম ওর জন্য তো আর নিজের সপ্নটাকে নষ্ট করতে পারবো না ওরে বোঝালে ঠিকি বুঝবে

 

তারপর রেডি হয়ে কলেজ গেলাম

 

কলেজ দিয়ে ডুকে দেখলাম সাঈদ আর খুশি বসে আড্ডা দিতেছে আমাকে দেখে সাঈদ খুশিকে কি যেন বললো

 

আমার দিকে তাকিয়ে খুশির হাসি মুখটা যেন মূহুর্তে কালো হয়ে গেল

 

রাগি রাগি ভাব চলে আসলো ওর মুখে

 

তা দেখে আমার অনেক খারাপ লাগতেছিল

 

তারপর আমি ভয়ে ওদের দিকে না যেয়ে ক্লাসের দিকে চলে যাচ্ছিলাম যখনই ওদের সামনে দিয়ে যাব

 

খুশিঃ এই দারা কোথায় যাচ্ছিস

 

আমিঃ ক্লাসে

 

খুশিঃ ভালো,,,,।এখন বল কাল তানিয়ার দিকে এভাবে তাকিয়ে ছিলি কেন,,,,?

 

আমিঃ কিভাবে তাকায়ছি আমি তো ওরে বোনের মতো দেখি

 

খুশিঃ ও বোনের মতো দেখিস তো সাঈদকে কেন বলছিস পরির মত লাগে বিশ্ব সুন্দরী

 

আমিঃ দোস্ত প্লিজ রাগ করিস না আমি জানতাম না এটা তোর বোন ছিল,,,,,? সত্যি এখন থেকে আর ফিরা তাকাবো ও না

 

খুশিঃ তাকাবি না কেন,,,,,? ১০০ বার তাকাবি হাজার বার তাকাবি

 

আমি তো পূরা অভাক কি বলে মাইয়া

 

আমিঃ কি বলতেছিস এগুলা

 

খুশিঃ ঠিকি বলতেছি,,,।তোর পছন্দ হইছে তুই তাকাবি না

 

আমিঃ কিন্তু

 

খুশিঃ আচ্ছা শুন,,,,। যদি অন্য কোন মেয়ে হতো তাহলে আমি তোকে হেল্প করতাম না,,,,।

 

আমিঃ হুম কিন্তু

 

খুশিঃ আরে রাখ তোর কিন্তু,,,,,,। সবার বেলা সমান অধিকার

 

আমিঃ হুম আমি তো ভয় পেয়ে গেছিলাম

 

খুশিঃ আমি ইচ্ছা করে একটু প্রাংক করছি আর কি 😁😁😜

 

আমিঃ হুম বুঝছি

 

খুশিঃ হুম আচ্ছা দোস্ত বল কয় দিন লাগবে

 

আমিঃ কিসের জন্য?

 

খুশিঃ আমার বোনকে পটাইতে

 

আমিঃ সত্যি দোস্ত আমি আর তোর বোনের দিকে ফিরেও তাকাবো না

 

খুশিঃ কুত্তা থাপড়ামু

 

আমিঃ কেন?

 

খুশিঃ তুই ১০০ বার তাকাবি হাজার বার তাকাবি,,,,,,।ভর্তি হওয়ার পর থেকেই পিছনে লেগে থাকবি,,,,। যত দিন না ভালোবাসে

 

আমিঃ আচ্ছা দোস্ত বলতো তুই কি আসলেই ওর বোন

 

খুশিঃ কেন সন্দেহ হচ্ছে

 

সাঈদঃ ১০০%

 

আমিঃ হুম আমারও

 

খুশিঃ আচ্ছা বল তুই কোন দিক দিয়ে খারাপ ছেলে শুধু একটু কিপটা আর কি এই তো

 

সাঈদঃ হুম এটা সারা আমি ও তেমন খারাপ দিক দেখি না,,,,,। সিগারেট খায় না নেশা করে না,,,। নামাজ পড়ে তো ভালোই তো

 

খুশিঃ হুম তাহলে বল কেন আমার বোন কে তোর কাছে দিব না যেখানে তুই নিজে পছন্দ করছিস

 

আমিঃ হইছে তোদের পাম মারা আর মারতে হবে না,,,,,,।আমি ওতো ভাল ছেলে না যতটা তোরা ভাবছিস

 

খুশিঃ খারাপ হলে খারাপই তুই তানিয়ার সাথে প্রেম করবি মানে প্রেম করবি আম আর কিছু শুনতে চাই না

 

Waiting for next…

Leave a Reply

Your email address will not be published.